রায়পুরায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি 

ARIFkhan 0
  •     নরসিংদী সংবাদদাতা

 নরসিংদীর রায়পুরায় ছেলে ধরা সন্দেহে একজনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।  এসময় তার কাছ তিন শিশু কন্যাকে উদ্ধার করা হয়। আটককৃত ব্যক্তি সোহেল মিয়া (২৫) জানান তিনি কিশোরগঞ্জের  কুলিয়ারচরের কামালপুর এলাকার আল আমিন মিয়ার ছেলে।
খবর পেয়ে ওই তিন শিশুর বাবা-মা এসে তাদের সন্তানদের নিয়ে গেছেন। উদ্ধারকৃত শিশুর মধ্যে পৌর এলাকার পশ্চিমপাড়ার ইজিবাইক চালক নয়ন মিয়ার মেয়ে বিথী (১০), বাদশা মিয়ার মেয়ে আদিবা (৮) ও হালিম মিয়ার মেয়ে ঝুমা (৬)।  শিশু বিথী বলেন, প্রথমে ওই লোক আমাকে জিজ্ঞাসা করেন আমি নয়নের মেয়ে কিনা।  উত্তরে আমি হ্যাঁ বলি।  তিনি আমাকে বাবার পাওনা টাকা দেওয়ার কথা বলে একটি ইজিবাইকে করে আমাকেসহ দুই খালাতো বোনকে তোলে নিয়ে যাচ্ছিল। কিছু দূরে যাওয়ার পর আমরা ভয়ে চিৎকার শুরু করি।  তারপর আশপাশের লোকজন এসে গাড়ি থামিয়ে ওই ব্যক্তিকে আটক করে আমাদেরকে উদ্ধার করেন।
রায়পুরা থানার সেকেন্ড অফিসার দেব দুলাল জানান, বর্তমানে তিনি থানার হেফাজতে আছেন। এ ঘটনায় রায়পুরা থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।
Tags: