পটিয়া শাহ্ আমিরুজ্জমান (রঃ) স্মৃতি ফাউন্ডেশন এাণ বিতরণ

ARIFkhan 0

সেলিম চৌধুরী,পটিয়াঃ

চট্টগ্রামের পটিয়া শাহ্ আমিরুজ্জমান (রঃ) স্মৃতি ফাউন্ডেশনের তত্তাবধানে শাহ্ আমিরুজ্জমান মেধাবৃত্তি পরীক্ষার পক্ষ থেকে মহামারী করোনাভাইরাস সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলায় মধ্যবিক্ত 

ননএমপিও শিক্ষকদের মাঝে ১৮ এপ্রিল শনিবার পৌর সদর বিওসি রোডে১৮ এপ্রিল শনিবার সকালে  জরুরি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন সংগঠনের উপদেষ্টা পটিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ সাইফুল ইসলাম। এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ফজলুল করিম, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের সহসভাপতি ও পটিয়া  পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট সমাজ সেবক আবু তাহের চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক ইউসুফ মিজান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাজদুল করিম, প্রচার সম্পাদক ইকবাল হোসেন, উপদেষ্টা কাজী সোহেল, সদস্য ইয়াছিন আরফাত, সদস্য মোঃ আরিফ প্রমুখ। কাউন্সিলর শেখ সাইফুল ইসলাম বলেন, সুস্থ থাকুন ঘরে থাকুন নিরাপদ থাকুন সরকারের নিয়ম মেনে চলুন, 

তিনি এ সংগঠন সরকারের বিভিন্ন জাতীয় দিবস সহ সমাজের নানান ভাবে অবদান রাখার জন্য ধন্যবাদ জানান সংগটনের নেতৃবৃন্দকে।            সভাপতির বক্তব্যে ফজলুল করিম বলেন, মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলা করতে সকল বিত্তশালীকে কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়ানোর আহবান জানান, সহ সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক আবু তাহের চৌধুরী বলেন,  মানবজাতির এই সংকট কাটিয়ে উঠতে একাত্মতা বড় প্রয়োজন। স্বার্থপরতায় মানবজাতির অস্তিত্ব হুমকির সম্মুখীন হবে তা যেন মানুষ বুঝতে পারে। অসহায় ক্ষুধার্ত মানুষের মাঝে দুমুঠো খাবার আজ যারা তুলে দেওয়ার সাধ্য আছে তারা যেন হাত গুটিয়ে না নিই এই অঙ্গীকার হোক আজ নতুন বঙ্গাব্দে। পৃথিবী জুড়ে সমগ্র মানুষের সুস্থতা এই প্রার্থনা করি সকলে মিলে  প্রমাণ করি আমরা মানুষই সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব। সাধারণ  সম্পাদক দেলোয়ার  হোসেন বলেন, মানব ধ্বংসকারী মহামারীর মহাদানব করোনাভাইরাস। এই মহাদুর্যোগে আপন মা-বাবা করোনাতে মৃত্যুবরণ করলে নিজ সন্তানও কাছে যাচ্ছে না দাফন-কাফনের ব্যবস্থা করতে।এই মহামারীটা আল্লাহর প্রদত্ত একটি   অভিশাপ তথা গজব। তবে এখানেই জীবন থেমে যাবে না। কারণ, জীবন বাঁচানো ফরয। আমরা সবাই একটু সচেতন হলে, এই করোনার থাবা থেকে রক্ষা পেতে পারি। এর জন্য চাই সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজের মৌলিক চাহিদা মেটাতে অটুট থাকা। 

এসময়ের সবচেয়ে উচিৎ সচেতন থেকে পরিস্কার পরিছন্নতা সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার এবং  লকডাউন

Tags:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *