কবিতা -জন্ম আমার গেল বিফল

ARIFkhan 0

লেখক

এইচ এম আবদুল কুদ্দুস খোকন

জন্ম আমার আজন্মকালবিফল গেল, দুঃখে, কষ্টে, জর্জরিত পাপে চুরমার,। জন্মদিনে গেল নানি মারা, হাটতে হাটতে দুই এক পা দিলাম মাটিতে পারা, তখন বয়স বছর তিন চার, মায়ের মুখে শুনছি আমি হায়াত নেই নানার।পায়নি আদর সোহাগ কোন দিনও জন্মস্থানে,তাইতো নাইকো সুখ আমার মনে প্রানে।

দাদার ৭০ বছর মৃত্যু সনদ হলো এবছর পার, দাদি গেছে মারা আগে দাদার।শ্রদ্ধেয় নারায়ণ মাষ্টারের কাছে দিলাম হাতে খড়ি, কোরআন শিখতে পারিনি যেতে মক্তবেতে ঘুম ছিল ভারি,শিখতেই পারলামনা ছেপারার আলিফ,বা, তা নিজেকে আমি মুসলমান বলি বাহ্ বাহ্ বাহ্। প্রাইমারিতে ছোট দিদিমণি, বড় দিদিমণি, ছিল হুজুর স্যারে, স্কুলেতে ইউনুস মাষ্টার, বিকাশ বাবু,কুদ্দুস হুজুর, বাংলাতে আজিজ মাষ্টার গুরু,কলেজে আমার শ্রদ্ধা রইল স্যারদের প্রতি লেখাপড়া টেনে ইতি,মোটামুটি একটা জব শুরু। দুষ্টমিতে ছিলাম সেরা এলাকার, সিরিয়ালে বখাটেদের মধ্যে তিন-চার নাম্বার।

কত খারাপ কাজের জন্য খেলাম বাবার হাতের মা’র, সব লুকিয়ে আদর করতো গর্বধারিনি মা আমার।বাবার শাসন মাটির দেহে করলো ধারন, কর্ম নামের বীজ। কর্মবীজে গজালো গাছ ধরলো ফুল ধরলো সুমিষ্ট ফল,বাবা আমার মারা গেল প্রাই তিনবছর, শশুর আমার আব্বু হলো, বউ জীবনে ভাগ বসালো,বউয়ের মা শাশুড়ি হলো, মা শুধু দিয়েই গেল, জীবনের ইনকাম নিলাম হলো সবাই মিলে ফলের স্বাদ নিলো।কর্ম জীবন আমার নতুন, উন্নতির দৌড় ঠেলা গাড়ির চাকার মতন,, ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে মাস শেষে টেনেটুনে চলে সংসার, সঞ্চয় বলতে কোন ব্যাংকে নেই জমা আমার।চাকরি করি খাই ধাই করি ক্ষতি কার ?? মানুষের ভাল চায়না যে , সে আমায় বলে বাটপার cheater,আমি বেশ ভাল আছি, যেই যাই বলুক ভাইDoesn’t matter……….. দ্বীনি কায়েম নামাজ, রোজা, করলাম না আদায় যাকাত,জবাব আমায় দিতেই হবে কারন আল্লাহর সর্বশেষ্ট জীব আশরাফুল মাক্লুকাত।

ঝালকাঠি / এইচ এম আবদুল কুদ্দুস খোকন

Tags: